Deprecated: mysql_connect(): The mysql extension is deprecated and will be removed in the future: use mysqli or PDO instead in /home/sumon09/public_html/include/config.php on line 2
 কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহারে সফল কৃষক ময়মনসিংহের হিরা মিয়া

২১ জুলাই ২০১৮


হোম   »   কৃষি তথ্য   »   ইন্টারভিউ  
কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহারে সফল কৃষক ময়মনসিংহের হিরা মিয়া

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার আদর্শকৃষক নূরুল আমিন হীরা মিয়া জমিতে গুটি ইউরিয়া প্রয়োগ, চালা কম্পোষ্ট, আবর্জনা কম্পোষ্ট, কুইক কম্পোষ্ট সহ নানা কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার করে উপজেলার সফল চাষি হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেছে।

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার বালিয়ান ইউনিয়নের বালাশ্বর উত্তরপাড়া গ্রামের কৃষক নূরুল আমিন হীরা মিয়া হিরা মিয়া ২০০৮ সালে কৃষি বিভাগের প্রযুক্তি ব্যাবহারের মাধ্যমে বোরো মৌসুমে গুটি ইউরিয়া প্রয়োগে অধিক ফলনে খাদ্য উৎপাদনে দৃষ্টান্তমুলক সাফল্যে স্কীকৃতিস্বরুপ জাতীয় পুরস্কারে পুরস্কৃত হয়েছেন। এস এস সি পর্যন্ত লেখাপড়া জানা হিরা মিয়ার সাথে কথা বললে সে জানায়, কৃষি বিভাগ থেকে প্রাপ্ত সহযোগীতার কথা। সে ফসলী জমিতে গুটি ইউরিয়া প্রয়োগ, জৈব সারের বিকল্প কমপোষ্ট তৈরীর নমুনা, উন্নত জাতের বীজ তৈরী , পশুপালন, সবজী চাষ সহ প্রায় অর্ধশত প্রশিক্ষনে নিয়মিত অংশ গ্রহন করেছেন বলে জানান। এসব প্রশিক্ষনে তার ব্লকের উপ সহকারী কৃষি অফিসার এনামুল হকের অবদানের কথাই বলেছেন বেশী।

এছাড়াও ধানচাষে কৃষি প্রযুক্তি ব্যাবহারে সুনাম অর্জনে উপজেলা কৃষি অফিস থেকে শুরু করে জেলা পর্যায়ের এমন কোন কর্মকর্তা নেই যে তাকে না চেনে এক নামে কৃষক হিরা মিয়াকে। কৃষি বিভাগের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের বিভিন্ন টিম এসে গুটি ইউরিয়া প্লট সহ তার বিভিন্ন প্রদর্শনী প্লট ঘুড়ে দেখেছেন এবং ফসল উৎপাদনের প্রশংসা করেছেন। কৃষি বিভাগের পরামর্শে প্রযুক্তি ব্যাবহার করে গুটি ইউরিয়া ব্যাবহারে উদ্ভুদ্ধ করে কৃষক হিরামিয়া তার এলাকায় প্রায় ৫০ একর জমিতে গুটি ইউরিয়া সার প্রয়োগে কৃষকদের সহযোগীতা করেছেন।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানাযায়, হিরা মিয়া কৃষি প্রযুক্তি মোতাবেক বিভিন্ন কম্পোষ্ট তৈরী, বিভাগীয় প্রদর্শনীগুলো সঠিকভাবে স্থাপন, দীর্ঘ প্রায় ৭ বছর যাবত ধান বীজ সংরক্ষন ও বীজ বিতরন, ড্রাম সীডারে ধানের ফসল আবাদ, গত ৫ বছর যাবত প্রতি মৌসুমের ফসলী জমিতে নিয়মিত গুটি ইউরিয়া সার প্রয়োগ সহ সে ফসল উৎপাদনে নীজে প্রযুক্তি অনুযায়ী চাষ করেন ও অন্যান্য কৃষকদেও পরামর্শ দেন।দুই পুত্র-কন্যার সংসারে হিরামিয়া কৃষক হিসেবে একজন আদর্শ কৃষক।

ধান চাষের পাশাপাশি সবজী আবিদ,ফলের গাছ লাগানো, পুকুরে মাছ চাষ , দুধের গাভী পালন এখন তার নিত্যদিনের সঙ্গী, এসব কিছুই তার বাজার থেকে কিনতে হয় না। সংসারের প্রয়োজনের পর উদ্ধৃত যা হয় কৃষক হিরা মিয়া তা বাজারে বিক্রি করে থাকে। ছেলে মেয়ের লেখাপড়ার পাশাপাশি সেই উদ্ধৃত টাকা দিয়ে হিরা মিয়া ১০ কাঠা ফসলী জমি কিনেছে । শুধু ধানচাষে নয় পুত্র -কন্যার সংসারে ও বয়ে এনেছে শান্তি।ফসল আবাদে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যাবহারের পাওয়ার টিলার, সেচ যন্ত্র,ধান মাড়াই মেশিন সহ সকল কৃষি যন্ত্রপাতি ক্রয় করেছেন সে। হিরা মিয়া জানায়, ধান আবাদী প্রতি মৌসুমে সে ১৫০ থেকে পৌনে ২শ মন ধান ঘড়ে তুলেন। নিজ হাতের তৈরী ধান বীজ বিক্রি করেন প্রতি মৌসুমের শুরুতে ৪০ থেকে ৫০ মন। শুধু বাজারেই না কৃষি বিভাগ ও তার কাছ থেকে ভাল বীজ ক্রয় করে থাকেন। এবছরের বোরো মৌসুমে ৪ একর ফসলী জমিতে গুটি ইউরিয়া বেশী প্রয়োগে বাম্পার ফলনের আশা করছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ আহসানুল বাসার জানান, কৃষক হিসেবে হিরা মিয়া একজন আদর্শ কৃষক। কারন হিসেবে তিনি জানান, অধিক ফলনে যে পদ্ধতি তাকে শেখানো হয় তা মনযোগ সহকারে বাস্তবায়ন করেন।
পাতাটি ২৯০১ প্রদর্শিত হয়েছে।
এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

»  সফলকৃষক কুমার দুধ বংশি

»  মিষ্টি কুমড়া চাষ করে ভাগ্যোন্নয়ন

»  কুল চাষ করে স্বাবলম্বী বিপুল

»  সফল খামারি গাজী আব্দুল মালেক

»  মুরগি খামার করে স্বাবলম্বী সোহেল