Deprecated: mysql_connect(): The mysql extension is deprecated and will be removed in the future: use mysqli or PDO instead in /home/sumon09/public_html/include/config.php on line 2
 টমেটোপাকানো হচ্ছে কার্বাইড দিয়ে

২১ আগষ্ট ২০১৮


হোম   »   কৃষি তথ্য   »   সংবাদপত্রে কৃষির খবর  
টমেটোপাকানো হচ্ছে কার্বাইড দিয়ে

শরীয়তপুরের ৩টি উপজেলায় শতাধিক স্থানে কৃষকরা পানির সাথে কার্বাইড মিশিয়ে টমেটো পাকিয়ে থাকে। এভাবে টমেটো পাকিয়ে ঢাকার বাজারে পাঠানো হয়। রাসায়নিক দ্রব্য কার্বাইড মানবদেহের যকৃত ও বৃক্কের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। স্থানীয় কৃষকরা অধিক মুনাফা লাভের আশায় এভাবে টমেটো পাকিয়ে বিক্রি করছে।

শরীয়তপুর কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, চলতি মৌসুমে শরীয়তপুর জেলার ৬টি উপজেলায় ৪ হাজার হেক্টর জমিতে টমেটোর আবাদ করা হয়েছে। তন্মধ্যে জাজিরা, নড়িয়া ও শরীয়তপুর সদর উপজেলায় টমেটোর বেশি আবাদ করা হয়। জানা যায়, অক্টোরব মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত চমেটোর চাষ হয়। ফলন ওঠা শুরু হয় জানুয়ারি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে। কিন্তু বেশী দাম পাওয়ার আশায় স্থানীয় কৃষকরা জমি থেকে পরিপক্ক ফলন উঠার পূর্বে কাঁচা টমেটো তুলে রসায়নিক কার্বাইড সেপ্র করে পাকিয়ে বিক্রি করছে। এই টমেটো ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে প্রতি টন ২৫ হাজার টাকা দামে ঢাকার কাওরান বাজারে বিক্রি করা হয়। প্রতি ২ টন টমেটোতে ১০০ মিলি লিটার কার্বাইড ৩০ লিটার পানি দিয়ে ব্যবহার করা হয়। পানির মধ্যে মিশিয়ে তা স্প্রে করা হয়। জমি থেকে কাঁচা টমেটো তুলে ২ বার কার্বাইড স্প্রে করা হয়। তা রোদে শুকিয়ে ৩ দিন জাগ দেয়া হয়। তারপর টমেটো লাল রং ধারণ করে।

এ ব্যাপারে শরীয়তপুরের সিভিল সার্জন আব্দুল ওহাব জানান, কার্বাইড মানবদেহে প্রবেশ করলে কিডনি ও লিভার ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

জাজির উপজেলার জয়নগর খান কান্দি গ্রামের টমেটো চাষী কামাল উদ্দিন ও রাজ্জাক খান জানান, জমিতে টমেটো পাকতে অনেক সময় লাগে। তখন পাকা টমেটোর দাম কম থাকে। বেশী দামে বিক্রি করার পাকা টমেটো ওঠার নির্দিষ্ট সময়ের আগেই আমরা টমেটো তুলে কার্বাইড মিশিয়ে টমেটো পাকিয়ে থাকি। কার্বাইড মানুষের শরীরের জন্য ক্ষতিকারক তা আমরা জানি না। টমেটো ব্যবসায়ী আল ইসলাম ও আব্দুস সালাম জানান, কার্বাইড দিয়ে পাকানো টমেটোর রং ভাল হয়। তাই ভাল দাম পাওয়া যায়। প্রতিদিন এ অঞ্চল থেকে কয়েকশ’ টন টমেটো ঢাকায় নিয়ে বিক্রি করি। প্রতি টন টমেটো ২৫ হাজার টাকা দামে বিক্রি করছি।

জয়নগর ইউনিয়ন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ইসমাইল হোসেন বলেন, কৃষকদের টমেটোতে কার্বাইড ব্যবহার না করার জন্য আমরা অনুরোধ করি। তারপরও তারা অধিক মুনাফার আশায় এ কাজ করে থাকে।

শরীয়তপুর কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ মনসুর রহমান জানান, রাসায়নিক দ্রব্য দিয়ে টমেটো পাকানোর খবর আমাদের কাছে এসেছে। আমরা কৃষকদের এ কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য উদ্বুদ্ধকরণ সভা করেছি। এরপরও তারা পরামর্শ না শুনলে স্বাস্থ্য বিভাগ ও প্রশাসনের সহায়তায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক
পাতাটি ২১৩৯ প্রদর্শিত হয়েছে।
এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

»  চাই কৃষিবান্ধব তথ্যপ্রযুক্তি

»  উত্তরাঞ্চলে ৫০ হাজার বিঘায় সয়াবিন চাষের পরিকল্পনা

»  আলু চাষে সাফল্য পেতে চান চৌগাছার কৃষকরা

»  তালায় লবণসহিঞ্চু টমেটো চাষে ব্যাপক সাফল্য

»  ফসলি জমিতে সারের ব্যবহার আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে